Sat. Jun 22nd, 2024

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 : History Page 166

বিভাগ- ‘ক’ ১| সঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখো:

১.১ পৃথিবীর সর্বাপেক্ষা প্রাচীন খেলা হল-
ক) হা ডুডু
খ) ফুটবল
গ) হকি
ঘ) মানাকালা

১.২ সংস্কৃতিনগরী বলা হয় যে শহরকে—
ক) বোম্বাই
খ) দিল্লি
গ) কলকাতা
ঘ) জয়পুর

১.৩ ভারতের বেকন নামে খ্যাত-
ক) অক্ষয়কুমার দত্ত
খ) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
গ) গিরিশচন্দ্র ঘোষ
ঘ) মধুসূদন রায়

১.৪ বাংলা ভাষায় লেখা প্রথম ঐতিহাসিক উপন্যাস-
ক) দেবী চৌধুরানি
খ) শাহজাহান
গ) দুর্গেশ নন্দিনী
ঘ) মেবার রানা

১.৫ ভারতীয় জাতীয়তাবাদের জনক-
ক) বঙ্কিমচন্দ্র
খ) বিবেকানন্দ
গ) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
ঘ) সুভাষচন্দ্র বসু

১.৬ ভারতে প্রথম অরণ্য আইন পাশ হয়—
ক) ১৮৬৫ খ্রিস্টাব্দে
খ) ১৮৬৯ খ্রিস্টাব্দে
গ) ১৮৭৮ খ্রিস্টাব্দে
ঘ) ১৮৫৭ খ্রিস্টাব্দে

১.৭ যে শহরটিকে কেন্দ্র করে ‘জঙ্গলমহল‘ নামে বিশেষ জেলা গঠন করা হয়-
ক) ঝাড়গ্রাম
খ) মেদিনীপুর
গ) বিষ্ণুপুর
ঘ) বাঁকুড়া

১.৮ সিপাহী বিদ্রোহীরা যাকে সম্রাট বলে ঘোষণা করে-
ক) দ্বিতীয় বাহাদুর শাহকে
খ) কুনুয়ার সিংকে
গ) তাঁতিয়া তোপিকে
ঘ) নানা সাহেবকে

আরও পড়ুনঃ 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Bangla Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 English Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 History Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Geography Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Physical Science Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Mathematics Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Life Science Solution 

১.৯ হজরত্মহল সিপাহী বিদ্রোহে নেতৃত্ব দেন-
ক) অযোধ্যায়
খ) দিল্লিতে
গ) কানপুরে
ঘ) ফৈজাবাদে

১.১০ ভারতের প্রথম রাজনৈতিক সংগঠন—
ক) জমিদার সভা
খ) বঙ্গভাষা প্রকাশিকা সভা
গ) ভারতসভা
ঘ) হিন্দু মেলা

১.১১ ‘বাল্যশিক্ষা‘ গ্রন্থটির রচয়িতা-
ক) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
খ) মদনমোহন তর্কালঙ্কার
গ) রামসুন্দর বসাক
ঘ) গোবিন্দপ্রসাদ দাস

১.১২ কলকাতা বিজ্ঞান কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন—
ক) জগদীশচন্দ্র বসু
খ) প্রফুল্লচন্দ্র রায়
গ) মহেন্দ্রলাল সরকার
ঘ) আশুতোষ মুখোপাধ্যায়

১.১৩ ‘শের-ই বাংলা’ নামে পরিচিত ছিলেন–
ক) এ কে ফজলুল হক
খ) স্যার আশুতোষ মুখোপাধ্যায়
গ) চিত্তরঞ্জন দাশ
ঘ) অরবিন্দ ঘোষ

১.১৪ অন্ধ্রপ্রদেশের উল্লেখযোগ্য জঙ্গি কৃষক আন্দোলনের নাম—
ক) চম্পারন আন্দোলন
খ) খেদা আন্দোলন
গ) একা আন্দোলন
ঘ) রাম্পা বিদ্রোহ

১.১৫ বাংলায় প্ৰথম প্ৰকৃত ট্রেড ইউনিয়ন গঠিত হয়—
ক) জুট মিলে
খ) রেলওয়েতে
গ) সূতাকলে
ঘ) সরকারি প্রেসে

১.১৬ ‘ভারতের নাইটিঙ্গেল‘ নামে খ্যাত—
ক) সরলাদেবী
খ) সরোজিনী নাইডু
গ) কমলা নেহরু
ঘ) বাসন্তী দেবী।

১.১৭ ‘খোদা-ই খিদমতগার’-এ নেতৃত্ব দেন-
ক) মৌলানা আবুল কালাম আজাদ
খ) খান আব্দুল গফ্ফর খান
গ) ফজলুল হক
ঘ) শওকত ওসমানি।

১.১৮ ভারতীয় সংবিধানের জনক-
ক) রাধাকৃষ্ণান
খ) রাজেন্দ্রপ্রসাদ
গ) আম্বেদকর
ঘ) জওহরলাল নেহরু

১.১৯ ভারতের লৌহ মানব বলা হয়—
ক) বাল গঙ্গাধর তিলককে
খ) সর্দার বল্লভভাই প্যাটেলকে
গ) সুভাষচন্দ্র বসুকে
ঘ) জয়ন্ত চৌধুরীকে।

১.২০ ‘নীলকণ্ঠ পাখির খোঁজে‘ বইটির লেখক–
ক) দক্ষিণারঞ্জন বসু
খ) সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়
গ) অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়
ঘ) প্রফুল্লচন্দ্র রায়।

 

বিভাগ-‘খ’ ২ । যে কোনো ষোলোটি প্রশ্নের উত্তর দাও : (প্রতিটি উপবিভাগ থেকে অন্তত একটি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে)

উপবিভাগ-২.১ একটি বাক্যে উত্তর দাও :

(২.১.১) চলচ্চিত্রের জনক কাদের বলা হয়?

উত্তরঃ লুমিয়ার ব্রাদার্সকে চলচ্চিত্রের জনক কাদের বলা হয়। 

ব্যাখ্যাঃ চলচ্চিত্রের জনক হিসেবে সাধারণত ফরাসি চলচ্চিত্র নির্মাতা অঁতোয়ান লুমিয়ারকে (Antoine Lumière) এবং তার ভাই লুই লুমিয়ারকে (Louis Lumière) বলা হয়। ১৮৯৫ সালের ২৮ ডিসেম্বর তারা তাদের স্টুডিওতে “দ্য আউটগোয়িং অফ দ্য লেবারারিজ ফ্রম দ্য লে লুমিয়ার ফ্যাক্টরি” (The Exit of the Lumière Factory) নামে একটি চলচ্চিত্র প্রদর্শন করেন। এই চলচ্চিত্রটিকেই বিশ্বের প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

অন্যদিকে, ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনক হিসেবে বলা হয় দাদাসাহেব ফালকেকে (Dadasaheb Phalke)। তিনি ১৯১৩ সালে “রাজা হরিশচন্দ্র” নামে ভারতের প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র নির্মাণ করেন। এই চলচ্চিত্রটিকে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

সুতরাং, চলচ্চিত্রের জনক হিসেবে বলা যায় ফরাসি চলচ্চিত্র নির্মাতা অঁতোয়ান লুমিয়ার এবং তার ভাই লুই লুমিয়ারকে। তবে, ভারতীয় চলচ্চিত্রের জনক হিসেবে দাদাসাহেব ফালকেকে বলা হয়।

 

(২.১.২) কুলীন কূল সর্বস্ব নাটকটি কার লেখা?

উত্তরঃ রামনারায়ণ তর্করত্ন। 

ব্যাখ্যাঃ কুলীন কূল সর্বস্ব নাটকটি রামনারায়ণ তর্করত্ন রচিত। তিনি ছিলেন একজন বাঙালি নাট্যকার। তিনি ছিলেন বাংলার প্রথম মৌলিক নাট্যকার ও হরিনাভি বঙ্গনাট্য সমাজের প্রতিষ্ঠাতা (১৮৬২)।

কুলীন কূল সর্বস্ব নাটকটি ১৮৫৫ সালে রচিত হয়। এই নাটকটিতে উনিশ শতকের বাংলা সমাজে প্রচলিত কুসংস্কার ও অন্ধবিশ্বাসের বিরুদ্ধে তীব্র আঘাত হানানো হয়েছে। নাটকটিতে দেখানো হয়েছে যে, সমাজে কুলীনের মর্যাদা ছিল সর্বোচ্চ। কুলীনের মেয়েকে বিয়ে করার জন্য সাধারণ পরিবারের ছেলেরা কতটা নিদারুণ যন্ত্রণা ভোগ করতে হয়। নাটকের শেষে দেখানো হয়েছে যে, ভালোবাসা ও সত্যের জয় হয়।

কুলীন কূল সর্বস্ব নাটকটি বাংলা নাটকের ইতিহাসে একটি মাইলফলক হিসেবে বিবেচিত হয়। এই নাটকের মাধ্যমে বাংলা নাটকে নতুন যুগের সূচনা হয়।

 

(২.১.৩) ‘ইম্পেরিয়াল ফরেস্ট রিসার্চ ইন্সস্টিটিউট‘ কোথায় প্রতিষ্ঠিত হয়?

উত্তরঃ ‘ইম্পেরিয়াল ফরেস্ট রিসার্চ ইন্সস্টিটিউট’ ১৮৭৮ সালে দেরাদুনে প্রতিষ্ঠিত হয়।

Note: ইম্পেরিয়াল ফরেস্ট রিসার্চ ইন্সস্টিটিউট বর্তমানে ভারতের বন গবেষণা ও শিক্ষার কেন্দ্রীয় প্রতিষ্ঠান। এটি ভারত সরকারের পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান।

‘ইম্পেরিয়াল ফরেস্ট রিসার্চ ইন্সস্টিটিউট’ ভারতীয় বন গবেষণার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই প্রতিষ্ঠানটি বন গবেষণা, বন শিক্ষা ও বন প্রশিক্ষণ প্রদান করে। এটি বন সংরক্ষণ ও উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে।

 

(২.১.৪) কলকাতার এলবার্ট হলের বর্তমান নাম কী?

উত্তরঃ কলকাতার এলবার্ট হলের বর্তমান নাম হল ইন্ডিয়ান কফি হাউস

Note: এই কফি হাউসটি কলকাতার কলেজ স্ট্রিটে অবস্থিত। এটি একটি জনপ্রিয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্র। এই কফি হাউসে বিভিন্ন সাহিত্য, সংস্কৃতি ও রাজনীতির ব্যক্তিত্বরা আড্ডা দেন।

এলবার্ট হল নামটি ব্রিটিশ রাজত্বের সময় থেকে বহাল ছিল। তবে, ১৯৪৭ সালে ভারতের স্বাধীনতার পর এই নামটি পরিবর্তন করা হয়। ১৯৫২ সালে এই কফি হাউসের নাম ইন্ডিয়ান কফি হাউস রাখা হয়।

 

উপবিভাগ-২.২ ঠিক না ভুল নির্ণয় করো :

(২.২.১) ভারতবর্ষে মুদ্রণ যন্ত্রের প্রবর্তন করেছিল পর্তুগিজরা।

উত্তরঃ ঠিক

ব্যাখ্যাঃ ভারতবর্ষে মুদ্রণ যন্ত্রের প্রবর্তন করেছিল পর্তুগিজরা। ১৫৫৬ সালে গোয়াতে পর্তুগিজ মিশনারি জোয়াও দে বুস্তামন্তে একটি মুদ্রণযন্ত্র স্থাপন করেন। এই যন্ত্রে তিনি রোমান হরফে বাংলায় একটি পুস্তক মুদ্রণ করেন।

 

(২.২.২) মানবেন্দ্রনাথ রায় ফাদার মার্টিন ছদ্মাবেশে জার্মানির বাটাভিয়াতে যান।

উত্তরঃ ভুল

ব্যাখ্যাঃ নরেন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য ফাদার মার্টিন ছদ্মাবেশে জার্মানির বাটাভিয়াতে যান।

 

(২.১.৩) স্বদেশী আন্দোলনের সঙ্গে ছাত্র আন্দোলনের কোনও সম্পর্ক নেই

উত্তরঃ ভুল

ব্যাখ্যাঃ স্বদেশী আন্দোলনের সঙ্গে ছাত্র আন্দোলনের গভীর সম্পর্ক ছিল। স্বদেশী আন্দোলনের সময় ছাত্ররা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তারা সভা, সমাবেশ, মিছিল, প্রচারণা ইত্যাদির মাধ্যমে স্বদেশী আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যায়।

স্বদেশী আন্দোলনের শুরু থেকেই ছাত্ররা স্বদেশী পণ্য ব্যবহার, ব্রিটিশ পণ্য বর্জনের আহ্বান জানায়। তারা ব্রিটিশ শাসনবিরোধী সভা, সমাবেশ ও মিছিলে অংশগ্রহণ করে। তারা ব্রিটিশ শাসনবিরোধী লিফলেট ও পত্রিকা প্রকাশ করে।

স্বদেশী আন্দোলনের অন্যতম শক্তিশালী হাতিয়ার ছিল ছাত্র আন্দোলন। ছাত্র আন্দোলনের মাধ্যমে স্বদেশী আন্দোলন সারা ভারতে ছড়িয়ে পড়ে।

(২.১.৪) দেশ ভাগের যন্ত্রনা বাংলার বুদ্ধিজীবীদের প্রভাবিত করতে পারিনি। 

উত্তরঃ ভুল

ব্যাখ্যাঃ দেশ ভাগের যন্ত্রনা বাংলার বুদ্ধিজীবীদের গভীরভাবে প্রভাবিত করেছিল। তারা দেশ ভাগের ফলে যে বিপর্যয় ঘটেছে তা দেখে হতাশ ও মর্মাহত হন। তারা দেশ ভাগের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ করেন।

দেশ ভাগের পর বাংলার বুদ্ধিজীবীরা বিভিন্ন সাহিত্যকর্ম রচনা করেন, যেখানে তারা দেশ ভাগের যন্ত্রণা ও বিপর্যয়ের চিত্র তুলে ধরেন। তারা দেশ ভাগের ফলে যে সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে তা সমাধানের জন্য বিভিন্ন প্রস্তাব দেন।

দেশ ভাগের যন্ত্রনা বাংলার বুদ্ধিজীবীদের জীবন ও কর্মে গভীর প্রভাব ফেলে। তারা দেশ ভাগের পরও ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বন্ধুত্ব ও সহযোগিতা প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করেন।

দেশ ভাগের যন্ত্রনা বাংলার বুদ্ধিজীবীদের প্রভাবিত করার কিছু উদাহরণ হল:

  • বুদ্ধদেব বসু তার “মহাবিশ্বের এক কোণে” উপন্যাসে দেশ ভাগের যন্ত্রণা ও বিপর্যয়ের চিত্র তুলে ধরেন।
  • শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় তার “দেবদাস” উপন্যাসে দেশ ভাগের ফলে যে সামাজিক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে তা তুলে ধরেন।
  • রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তার “শেষের কবিতা” কবিতায় দেশ ভাগের যন্ত্রণা ও বিপর্যয়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানান।

সুতরাং, বলা যায় যে, দেশ ভাগের যন্ত্রনা বাংলার বুদ্ধিজীবীদের গভীরভাবে প্রভাবিত করেছিল। তারা দেশ ভাগের ফলে যে বিপর্যয় ঘটেছে তা দেখে হতাশ ও মর্মাহত হন। তারা দেশ ভাগের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ করেন এবং দেশ ভাগের ফলে যে সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে তা সমাধানের জন্য বিভিন্ন প্রস্তাব দেন।

আরও পড়ুনঃ 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Bangla Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 English Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 History Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Geography Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Physical Science Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Mathematics Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Life Science Solution 

উপবিভাগ : ২.৩ ‘ক’ স্তম্ভের সঙ্গে ‘খ’ স্তম্ভ মেলাও :

‘ক’ স্তম্ভ ‘খ’ স্তম্ভ
(২.৩.১) ভারতীয় সঙ্গীতের মূল উৎস (১) স্বাধীনতার অগ্রদূত বলে কথিত
(২.৩.২) কাঙাল হরিনাথ (২) বাটখারা
(২.৩.৩) বেচারাম (৩) ফিকিরচাঁদ বাউল
(২.৩.৪) ঈশ্বর গুপ্ত (৪) সামবেদ

উত্তরঃ 

‘ক’ স্তম্ভ ‘খ’ স্তম্ভ
(২.৩.১) ভারতীয় সঙ্গীতের মূল উৎস (৪) সামবেদ
(২.৩.২) কাঙাল হরিনাথ (৩) ফিকিরচাঁদ বাউল
(২.৩.৩) বেচারাম (২) বাটখারা
(২.৩.৪) ঈশ্বর গুপ্ত (১) স্বাধীনতার অগ্রদূত বলে কথিত

 

উপবিভাগ-২.৪ প্রদত্ত ভারতবর্ষের রেখামানচিত্রে নিম্নলিখিত স্থানগুলি চিহ্নিত ও নামাঙ্কিত করো :
(২.৪.১) কোল বিদ্রোহের এলাকা
(২.৪.২) মহাবিদ্রোহের কেন্দ্র মীরাট
(২.৪.৩) শ্রমিক আন্দোলনের কেন্দ্র কানপুর
(২.৪.৪.) দেশীয় রাজ্য কাশ্মীর।

 

 

উপবিভাগ-২.৫ নিম্নলিখিত বিবৃতিগুলির সঙ্গে সঠিক ব্যাখ্যাটি নির্বাচন করো :

(২.৫.১) বিবৃতি : উনিশ শতক ছিল বাংলার শিক্ষা-সাহিত্য, ধর্ম ও সংস্কৃতির ইতিহাসে এক যুগ সন্ধিক্ষণ।
ব্যাখ্যা-১ : এই সময় বাংলার মাটিতে নানা গণ-আন্দোলনের জোয়ার আসে।
ব্যাখ্যা-২: ব্রিটিশ শাসন জাঁকিয়ে বসে।
ব্যাখ্যা-৩: নবজাগরণ ও বাঙালিদের মনোজগতে প্রতিক্রিয়া।

উত্তরঃ ব্যাখ্যা-৩: নবজাগরণ ও বাঙালিদের মনোজগতে প্রতিক্রিয়া।

 

(২.৫.২) বিবৃতি : বাংলার শিক্ষিত মধ্যবিত্ত শ্রেণি মহাবিদ্রোহের (১৮৫৭) সময় নীরব দর্শক হিসাবে ইংরেজ শাসকদের জয় কামনা করেছিল।
ব্যাখ্যা -১: বাঙালিরা খুবই শান্তিশিষ্ট।
ব্যাখ্যা-২: বাঙালিরা পরিবর্তন বিরোধী।
ব্যাখ্যা-৩:শিক্ষিত বাঙালিরা তখনও মনে করতো ব্রিটিশ শাসন ভারতের পক্ষে কল্যাণকর।
উত্তরঃ ব্যাখ্যা-৩: শিক্ষিত বাঙালিরা তখনও মনে করতো ব্রিটিশ শাসন ভারতের পক্ষে কল্যাণকর।

 

(২.৫.৩) বিবৃতি : ভারতে ব্রিটিশ শাসনের গোড়া থেকেই নিম্নবর্গের মানুষ বিশেষত কৃষক ও শ্রমিকরা সরকারের বিরুদ্ধে সক্রিয় প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল।
ব্যাখ্যা-১:ভারতে কৃষক ও শ্রমিকশ্রেণিই ব্রিটিশ শাসনে বেশি বঞ্চিত ও শোষিত হয়।
ব্যাখ্যা-২:কৃষক ও শ্রমিকদের সহ্য ক্ষমতা কম।
ব্যাখ্যা-৩: কৃষক ও শ্রমিকরা লেখাপড়া জানতো না।

উত্তরঃ ব্যাখ্যা-১: ভারতে কৃষক ও শ্রমিকশ্রেণিই ব্রিটিশ শাসনে বেশি বঞ্চিত ও শোষিত হয়।

 

(২.৫.৪) বিবৃতি- ভারতের জাতীয় আন্দোলনে নারীদের যোগদান খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ঘটনা।
ব্যাখ্যা-১: নারী প্রকৃতি অবলা, তাই তাঁদের অংশগ্রহণ তাৎপর্যপূর্ণ।
ব্যাখ্যা-২: ভারতে নারী শিক্ষা খুব ব্যাপক আকার ধারণ করে।
ব্যাখ্যা-৩: সমাজের অন্যান্যদের আন্দোলনে প্রেরণা দেন।

উত্তরঃ ব্যাখ্যা-২: ভারতে নারী শিক্ষা খুব ব্যাপক আকার ধারণ করে।

আরও পড়ুনঃ 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Bangla Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 English Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 History Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Geography Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Physical Science Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Mathematics Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Life Science Solution 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Insert math as
Block
Inline
Additional settings
Formula color
Text color
#333333
Type math using LaTeX
Preview
\({}\)
Nothing to preview
Insert
error: Content is protected !!