Tue. Jun 25th, 2024

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 : Physical Science Page 288

বিভাগ-ক’। বহু বিকল্পভিত্তিক প্রশ্ন। প্রতিটি প্রশ্নের নীচে চারটি করে বিকল্প উত্তর দেওয়া আছে। যেটি ঠিক সেটি লেখো :

1.1 নীচের কোনটি গ্রিনহাউস গ্যাস নয়?
(a) মিথেন
(b) জলীয় বাষ্প
(c) কার্বন-ডাই- অক্সাইড
(d) অক্সিজেন।

1.2 গ্যাস সংক্রান্ত বয়েলের সূত্রের লেখচিত্রটি হল-

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 : Physical Science Page 288

উত্তরঃ (b)

1.3 কার্বনযুক্ত কোনো গ্যাসীয় পদার্থের বাষ্পঘনত্ব 13 তার আণবিক সংকেত নীচের কোনটি হতে পারে?
(a) CO2
(b) C2H4
(c) C2H
(d) C2H2

ব্যাখ্যাঃ আণবিক গুরুত্ব = 2 × বাষ্পঘনত্ব

কার্বনযুক্ত কোনো গ্যাসীয় পদার্থের বাষ্পঘনত্ব 13 তার আণবিক গুরুত্ব হবে = 2 × 13 = 26

C2H2 -এর আণবিক গুরুত্ব = 2×(12) + 2×(1) = 26

সুতরাং, কার্বনযুক্ত কোনো গ্যাসীয় পদার্থের বাষ্পঘনত্ব 13 তার আণবিক সংকেত হবে C2H2

 

1.4 কার্বনের কত প্রকার তাপীয় প্রসারণ গুণাঙ্ক আছে?—
(a) এক
(b) দুই
(c) তিন
(d) চার

1.5 নীচের পদার্থগুলির মধ্যে কোনটির তাপ পরিবাহিতা সর্বাধিক-
(a) রূপা
(b) হীরা
(c) তামা
(d) অ্যালুমিনিয়াম

ব্যাখ্যাঃ হীরার তাপ পরিবাহিতা 2200 W/m-K, যা রূপার (420 W/m-K), তামার (385 W/m-K) এবং অ্যালুমিনিয়ামের (237 W/m-K) চেয়ে অনেক বেশি।

 

1.6 একটি অবতল দর্পণের বক্রতা ব্যাসার্ধ 20 সেমি হলে দর্পণটির ফোকাস দৈর্ঘ্য হবে—
(a) 20 সেমি
(b) 15 সেমি
(c) 10 সেমি
(d) 40 সেমি

ব্যাখ্যাঃ অবতল দর্পণের ফোকাস দৈর্ঘ্য বক্রতা ব্যাসার্ধের অর্ধেক। সুতরাং, 20 সেমি বক্রতা ব্যাসার্ধের একটি অবতল দর্পণের ফোকাস দৈর্ঘ্য হবে 20/2 = 10 সেমি
অতএব, উত্তর হল (c) 10 সেমি।

1.7 নিম্নলিখিত ভৌতরাশিগুলির মধ্যে অ্যাম্পিয়ার কোনটি?
(a) কুলম্ব.সেকেন্ড
(b) ভোল্ট.ওহম −1
(c) ভোল্ট.ওহম
(d) ভোল্ট −1. ওহম

ব্যাখ্যাঃ ওহমের সূত্রানুসারে, V = IR

∴ I = V/R

I হলো তড়িৎ প্রবাহমাত্রা যার একক হলো অ্যাম্পিয়ার, V হলো বিভব প্রভেদ যার একক হলো ভোল্ট এবং R হলো রোধ যার একক হলো ওহম। 

সুতরাং, অ্যাম্পিয়ার = ভোল্ট / ওহম = ভোল্ট.ওহম −1

 

1.8 গৃহস্থালির বৈদ্যুতিক বর্তনীতে ফিউজ তার নীচের কোনটির সঙ্গে যুক্ত থাকে?-
(a) আর্থ লাইন
(b) লাইভ লাইন
(c) নিউট্রাল লাইন
(d) লাইভ ও নিউট্রাল উভয় লাইন

Note: গৃহস্থালির বৈদ্যুতিক বর্তনীতে ফিউজ তার লাইভ লাইনের সাথে যুক্ত থাকে। লাইভ লাইন হল সেই লাইন যা থেকে বৈদ্যুতিক শক্তি আসে। ফিউজ তার লাইভ লাইনের সাথে যুক্ত থাকে যাতে কোনও ওভারলোড বা শর্ট সার্কিটের ঘটনা ঘটলে ফিউজটি গলে যায় এবং বর্তনীটিকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

 

1.9 তড়িৎচালক বল (V), কার্য (W) ও আধান (Q) এর মধ্যে সম্পর্কটি হল-
(a) Q=WV
(b) Q = V/W
(c) Q = V/W2
(d) Q = W/V

1.10 দীর্ঘ পর্যায় সারণিতে শ্রেণির সংখ্যা হল-
(a) 9
(b) 13
(c) 18
(d) 19

আরও পড়ুনঃ 

1.11 নীচের কোন্ ধর্মটি মৌলদের পর্যায়গত ধর্ম নয়?—
(a) ঘনত্ব
(b) গলনাঙ্ক
(c) স্ফুটনাঙ্ক
(d) তেজস্ক্রিয়তা

1.12 নীচের কোনটি অ্যালডিহাইডের কার্যকরী গ্রুপ?
(a) – OH
(b) – CHO
(c) >C=O
(d) –COOH

1.13 নীচের কোন্ ধাতুসংকরে জিঙ্ক বর্তমান?
(a) কাঁসা
(b) পিতল
(c) ব্রোঞ্জ
(d) ডুরালুমিন

ব্যাখ্যাঃ পিতল হলো তামা (Cu) ও জিঙ্কের (Zn) সংকর ধাতু। 

 

1.14 নাইট্রোজেন বন্ধনের প্রথম ধাপে বিদ্যুৎপাতের ফলে নীচের কোন্ যৌগটি উৎপন্ন হয়?—
(a) NO
(b) NO2
(c) N2O5
(d) HNO3

1.15 সোডিয়াম নাইট্রোপ্রুসাইড এর ক্ষারীয় জলীয় দ্রবণে H2S গ্যাস চালনা করলে কী রঙ উৎপন্ন হয়?–
(a) বেগুনি
(b) কমলা
(c) গাঢ় নীল
(d) সবুজ

ব্যাখ্যাঃ 

সোডিয়াম নাইট্রোপ্রুসাইড এর ক্ষারীয় জলীয় দ্রবণে H2S গ্যাস চালনা করলে বেগুনি রঙ উৎপন্ন হয়। এই বিক্রিয়াটিতে সোডিয়াম নাইট্রোপ্রুসাইড (Na2[Fe(CN)5NO]) এবং হাইড্রোজেন সালফাইড (H2S) এর মধ্যে বিক্রিয়া ঘটে এবং সোডিয়াম সালফাইড (Na2S), সোডিয়াম নাইট্রেট (NaNO3) এবং ফেরাস সালফাইড (FeS) উৎপন্ন হয়। এই বিক্রিয়াটিকে ফেরাস সালফাইড পরীক্ষা বলা হয়।

বিক্রিয়াটি হল:

2Na2[Fe(CN)5NO] + 6H2S → Na2S + 2NaNO3 + 2FeS + 10H2O

বেগুনি রঙের উৎপত্তি:

ফেরাস সালফাইড (FeS) একটি বেগুনি রঙের যৌগ। তাই, সোডিয়াম নাইট্রোপ্রুসাইড এর ক্ষারীয় জলীয় দ্রবণে H2S গ্যাস চালনা করলে বেগুনি রঙ উৎপন্ন হয়।

 

বিভাগ-“খ” 2. নিম্নলিখিত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও : (বিকল্প প্রশ্নগুলি লক্ষণীয়) :

2.1 UV রশ্মির প্রভাবে ক্লোরোফ্লুয়োরোকার্বন থেকে নির্গত কোন্ পরমাণুটি ওজোন গ্যাসকে অক্সিজেনে বিয়োজিত করে দেয়?

উত্তরঃ UV রশ্মির প্রভাবে ক্লোরোফ্লুয়োরোকার্বন থেকে নির্গত ক্লোরিন (Cl) পরমাণুটি ওজোন গ্যাসকে অক্সিজেনে বিয়োজিত করে দেয়। 

Note: CFC থেকে নির্গত ক্লোরিন পরমাণু ওজোন গ্যাসের সাথে বিক্রিয়া করে নিম্নলিখিত সমীকরণ অনুসারে ওজোন অণুকে অক্সিজেন অণুতে বিভক্ত করে দেয়:

Cl + O3 → ClO + O2

 

2.2 বায়োগ্যাসের একটি ব্যবহার উল্লেখ করো।

উত্তরঃ বায়োগ্যাসের একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যবহার হল বিদ্যুৎ উৎপাদন। বায়োগ্যাসে প্রায় 60% মিথেন থাকে, যা একটি জ্বালানী গ্যাস। মিথেন গ্যাসকে জ্বলিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায়।

অথবা,

ওজোন স্তরে ওজোনের বিয়োজনে NO এর ভূমিকা কী?

উত্তরঃ নাইট্রোজেন অক্সাইড ওজোন স্তরে ওজোনের বিয়োজনে নিম্নলিখিত দুটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভূমিকা পালন করে:

প্রক্রিয়া ১:

NO + O3 → NO2 + O2

এই প্রক্রিয়ায়, নাইট্রোজেন অক্সাইড ওজোন অণুর সাথে বিক্রিয়া করে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড (NO2) এবং অক্সিজেন অণু তৈরি করে।

প্রক্রিয়া ২:

NO2 + O → NO + O2

এই প্রক্রিয়ায়, নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড একটি অক্সিজেন পরমাণুর সাথে বিক্রিয়া করে নাইট্রোজেন অক্সাইড এবং অক্সিজেন অণু তৈরি করে।

প্রক্রিয়া ১-এ, নাইট্রোজেন অক্সাইড ওজোন অণুকে বিয়োজিত করে একটি অক্সিজেন পরমাণু তৈরি করে। এই অক্সিজেন পরমাণু তারপরে অন্য একটি ওজোন অণুর সাথে বিক্রিয়া করে দুটি অক্সিজেন অণু তৈরি করে। এভাবে ওজোন অণুর সংখ্যা হ্রাস পায়।

প্রক্রিয়া ২-এ, নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড আবার ওজোন অণুকে বিয়োজিত করে একটি অক্সিজেন পরমাণু তৈরি করে। এই অক্সিজেন পরমাণু তারপরে অন্য একটি ওজোন অণুর সাথে বিক্রিয়া করে দুটি অক্সিজেন অণু তৈরি করে। এভাবেও ওজোন অণুর সংখ্যা হ্রাস পায়।

নাইট্রোজেন অক্সাইডের কারণে ওজোন স্তরে ওজোন গ্যাসের পরিমাণ হ্রাস পাওয়ায় সূর্যের ক্ষতিকারক অতিবেগুনী রশ্মি পৃথিবীর পৃষ্ঠে পৌঁছানোর সম্ভাবনা বেড়ে যায়। এটি ত্বকের ক্যান্সার, চোখের সমস্যা এবং উদ্ভিদের ক্ষতি সহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য এবং পরিবেশগত সমস্যার কারণ হতে পারে।

 

2.3 নীচের বিবৃতিটি সত্য না মিথ্যা লেখো :

অ্যাভোগ্যাড্রো সূত্রে গ্যাসের অণুগুলির আয়তন গণ্য করা হয়।

উত্তরঃ বিবৃতিটি মিথ্যা। 

ব্যাখ্যাঃ অ্যাভোগ্যাড্রো সূত্রে গ্যাসের অণুগুলির আয়তন গণ্য করা হয় না।

অ্যাভোগ্যাড্রো সূত্রটি গ্যাসের আণবিক গতির উপর ভিত্তি করে গঠিত। গ্যাসের অণুগুলির আয়তন খুবই ছোট, তাই তা গ্যাসের আয়তনে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনতে পারে না। তাই, অ্যাভোগ্যাড্রো সূত্রে গ্যাসের অণুগুলির আয়তন গণ্য করা হয় না।

 

2.4 নিচের বিবৃতিটি সত্য না মিথ্যা লেখো :

তামা, লোহা ও ইনভারের মধ্যে লোহার রৈখিক প্রসারণ গুণাঙ্ক সর্বনিম্ন।

উত্তরঃ বিবৃতিটি মিথ্যা। 

ব্যাখ্যাঃ তামা, লোহা ও ইনভারের মধ্যে ইনভারের রৈখিক প্রসারণ গুণাঙ্ক সর্বনিম্ন

তামা, লোহা ও ইনভারের রৈখিক প্রসারণ গুণাঙ্কের মান নিম্নরূপ:

ধাতু
রৈখিক প্রসারণ গুণাঙ্ক (/°C)
তামা 17.3
লোহা 12.1
ইনভার 10.8

অথবা,

আয়তন প্রসারণ গুণাঙ্কের একক কী?

উত্তরঃ আয়তন প্রসারণ গুণাঙ্কের একক হল °C−1

 

2.5 LED-এর পুরো কথাটি কী?

উত্তরঃ LED-এর পুরো কথা হল Light Emitting Diode। 

 

2.6 আলোকের বিচ্ছুরণের একটি প্রাকৃতিক উদাহরণ দাও।

উত্তরঃ পৃথিবীর আকাশ নীল হওয়ার কারণ হলো আলোর বিচ্ছুরণ। 

 

2.7 আলোকরশ্মি লঘু থেকে ঘন মাধ্যমে গেলে আপাতন ও প্রতিসরণ কোণের মধ্যে কোনটি বড়ো?

উত্তরঃ আলোকরশ্মি লঘু থেকে ঘন মাধ্যমে গেলে আপাতন ও প্রতিসরণ কোণের মধ্যে আপতন কোণের মান বড়ো হয়। 

 

2.8 গ্যাসের অণুর গতিশক্তি পরম উষ্ণতার ______ হয়। (শূন্যস্থান পূরণ করো)

উত্তরঃ গ্যাসের অণুর গতিশক্তি পরম উষ্ণতার সমানুপাতিক হয়।

ব্যাখ্যাঃ গ্যাসের অণুগুলি সর্বদা গতিশীল থাকে। তাদের গতিশক্তি তাদের তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে। গ্যাসের অণুর গড় গতিশক্তিকে নিম্নরূপ প্রকাশ করা হয়:

\( K=\frac{3}{2}RT \)

যেখানে,

  • K হল গড় গতিশক্তি
  • R হল গ্যাস ধ্রুবক
  • T হল পরম তাপমাত্রা

এই সমীকরণ থেকে দেখা যায় যে, গ্যাসের অণুর গড় গতিশক্তি পরম তাপমাত্রার সমানুপাতিক। অর্থাৎ, পরম তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে গ্যাসের অণুর গড় গতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

 

2.9 পারমাণবিক চুল্লিতে কোন্ ধরনের নিউক্লিয় বিক্রিয়ার সাহায্যে শক্তি উৎপাদিত হয়?

উত্তরঃ পারমাণবিক চুল্লিতে নিউক্লিয় বিভাজন ধরনের নিউক্লিয় বিক্রিয়ার সাহায্যে শক্তি উৎপাদিত হয়। 

 

অথবা,

একটি প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয় মৌলের উদাহরণ দাও।

উত্তরঃ ইউরেনিয়াম হল একটি প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয় মৌল। 

 

2.10 S.I পদ্ধতিতে তড়িৎ আধানের একক কী?

উত্তরঃ S.I পদ্ধতিতে তড়িৎ আধানের একক হলো কুলম্ব (C)

আরও পড়ুনঃ 

2.11 বামস্তম্ভের সঙ্গে ডানস্তম্ভের সামঞ্জস্য বিধান করো :

বামস্তম্ভ ডানস্তম্ভ
2.11.1 সর্বাধিক তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল (a) নিকেল
2.11.2 একটি ইউরেনিয়ামোত্তর মৌল (b) কপার
2.11.3 ধাতুটি খোলা বায়ুতে থাকলে ধাতুটির ওপরে ছোপ ধরে (c) নেপচুনিয়াম
2.11.4 একটি সন্ধিগত মৌল (d) ফ্লুওরিন

উত্তরঃ

বামস্তম্ভ ডানস্তম্ভ
2.11.1 সর্বাধিক তড়িৎ ঋণাত্মক মৌল (d) ফ্লুওরিন
2.11.2 একটি ইউরেনিয়ামোত্তর মৌল (c) নেপচুনিয়াম
2.11.3 ধাতুটি খোলা বায়ুতে থাকলে ধাতুটির ওপরে ছোপ ধরে (b) কপার
2.11.4 একটি সন্ধিগত মৌল (a) নিকেল

 

2.12 F2 অণুর লুইস ডট চিত্র অঙ্কন করো। [F=9]

উত্তরঃ

 

2.13 তামার চামচের ওপর রূপার তড়িৎলেপন করতে ক্যাথোড হিসাবে কী ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ তামার চামচের ওপর রূপার তড়িৎলেপন করতে তামার চামচকে ক্যাথোড হিসাবে ব্যবহার করতে হবে। 

 

অথবা,

একটি যৌগের উদাহরণ দাও যার জলীয় দ্রবণ মৃদু তড়িৎবিশ্লেষ্য।

উত্তরঃ অ্যাসিটিক অ্যাসিড (CH3COOH)-এর জলীয় দ্রবণ মৃদু তড়িৎবিশ্লেষ্য।

 

2.14 নেসলার বিকারকের সঙ্গে অ্যামোনিয়ার বিক্রিয়ায় কী রঙ উৎপন্ন হয়?

উত্তরঃ নেসলার দ্রবণের সঙ্গে অ্যামোনিয়া বিক্রিয়া করলে বাদামী দ্রবণ তৈরি হয়।

 

2.15 উপযুক্ত লিটমাস কাগজের সাহায্যে দেখাও যে অ্যামোনিয়ার জলীয় দ্রবণ ক্ষারীয় প্রকৃতির।

উত্তরঃ অ্যামোনিয়ার জলীয় দ্রবণে নীল লিটমাস কাগজ লাল হয়ে যায়, যা প্রমাণ করে যে অ্যামোনিয়ার জলীয় দ্রবণ ক্ষারীয় প্রকৃতির।

 

অথবা,

শূন্যস্থান পূরণ করো : NaOH + H2S → ______ + H2O।

উত্তরঃ NaOH + H2S → Na2S + H2O

 

2.16 ইথানলের সঙ্গে Na এর বিক্রিয়ায় ______ গ্যাস নির্গত হয়।

উত্তরঃ ইথানলের সঙ্গে Na এর বিক্রিয়ায় হাইড্রোজেন গ্যাস নির্গত হয়।

ব্যাখ্যাঃ ইথানল এবং সোডিয়ামের বিক্রিয়াটি নিম্নরূপ:

CH3CH2OH + Na → CH3COONa + H2

 

2.17 নীচের বিবৃতিটি সত্য না মিথ্যা লেখো :

কঠিন NaCl-এর তড়িৎ পরিবাহিতা গলিত NaCl এর তড়িৎ পরিবাহিতা থেকে বেশি।

উত্তরঃ বিবৃতিটি মিথ্যা। 

ব্যাখ্যাঃ কঠিন NaCl-এ, সোডিয়াম এবং ক্লোরিন আয়নগুলি খুব শক্তভাবে আবদ্ধ থাকে। তাই, তারা মুক্তভাবে চলাচল করতে পারে না এবং তড়িৎ পরিবাহিতার জন্য প্রয়োজনীয় পরিবাহিতা প্রদান করতে পারে না।

গলিত NaCl-এ, সোডিয়াম এবং ক্লোরিন আয়নগুলি মুক্তভাবে চলাচল করতে পারে। তাই, তারা তড়িৎ পরিবাহিতার জন্য প্রয়োজনীয় পরিবাহিতা প্রদান করতে পারে।

সুতরাং, কঠিন NaCl-এর তড়িৎ পরিবাহিতা গলিত NaCl এর তড়িৎ পরিবাহিতা থেকে কম।

 

2.18 CH3CH2CH2OH এর IUPAC নাম লেখো।

উত্তরঃ 1-propanol (1-প্রোপানল)

 

অথবা,

CH3CH2OH এর একটি সমাবয়বের গঠন সংকেত লেখো।

উত্তরঃ CH3CH2OH এর একটি সমাবয়বের গঠন সংকেত হলো CH3-O-CH3

 

আরও পড়ুনঃ 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Insert math as
Block
Inline
Additional settings
Formula color
Text color
#333333
Type math using LaTeX
Preview
\({}\)
Nothing to preview
Insert
error: Content is protected !!