Sat. Jun 22nd, 2024

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 : Physical Science Page 82

বিভাগ-ক’। বহু বিকল্পভিত্তিক প্রশ্ন। প্রতিটি প্রশ্নের নীচে চারটি করে বিকল্প উত্তর দেওয়া আছে। যেটি ঠিক সেটি লেখো :

1.1 মেরুজ্যোতি দেখা যায় বায়ুমণ্ডলের –

(a) শান্তমণ্ডলে

(b) আয়নমণ্ডলে

(c) ক্ষুব্ধ মণ্ডলে

(d) কোনোটিই নয়।

Note : মেরুজ্যোতি হল একটি প্রাকৃতিক আলোর ঘটনা যা পৃথিবীর উত্তর এবং দক্ষিণ মেরুতে দেখা যায়। এটি সৌরঝড়ের সময় সূর্য থেকে আসা আয়নের সাথে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের আয়নমণ্ডলের বিক্রিয়া দ্বারা সৃষ্ট হয়। 

1.2 STP তে 5.6 লিটার CO2 এর ভর-

(a) 5.6 গ্রাম

(b) 11 গ্রাম

(c) 11.2 গ্রাম

(d) 22 গ্রাম।

ব্যাখ্যাঃ

STP তে, আদর্শ গ্যাসের 1 মোলের আয়তন 22.4 লিটার।

CO2 এর মোলার ভর 44 গ্রাম/মোল।

সুতরাং, STP তে, CO2 এর 1 মোলের ভর 44 গ্রাম।

5.6 লিটার CO2 হল = \frac{5.6L}{22.4L} = 1/4 মোল CO2 এর  সমান।

সুতরাং, 5.6 লিটার CO2 এর ভর \frac{1}{4}\times 44 = 11.2 গ্রাম ।

অতএব, উত্তর হল (c) 11.2 গ্রাম।

 

1.3 একটি গ্যাসের বাষ্পঘনত্ব 24 হলে গ্যাসটি হবে –

(a) H2S

(b) NH3

(c) SO2

(d) O3

ব্যাখ্যাঃ গ্যাসের বাষ্পঘনত্ব 24 হলে গ্যাসটির আণবিক গুরুত্ব হবে = 2 × 24 = 48

O3 গ্যাসের আণবিক গুরুত্ব = 16 × 3 = 48

 

1.4 কঠিনের দৈর্ঘ্য প্রসারণ গুণাঙ্ক ও আয়তন প্রসারণ গুণাঙ্কের অনুপাত হল –

(a) 1:2

(b) 1:3

(c) 2:3

(d) 1:8।

 

1.5 লেন্সের আলোককেন্দ্রগামী রশ্মির চ্যুতির মান-

(a) 45°

(b) 0°

(c) 90°

(d) 60° ।

1.6 হলুদের পরিপূরক বর্ণ হল –

(a) বেগুনী

(b) লাল

(c) সবুজ

(d) নীল।

Note: পরিপূরক বর্ণ হল এমন দুটি রঙ যা একত্রিত হয়ে সাদা বা কালো বর্ণ তৈরি করে। 

পরিপূরক রঙগুলির মধ্যে কিছু সাধারণ উদাহরণ হল:

  • লাল এবং সবুজ
  • হলুদ এবং বেগুনি
  • নীল এবং কমলা

 

1.7 ‘ওয়াট-ঘণ্টা’ কোন রাশির একক?

(a) তড়িতাধান

(b) তড়িৎশক্তি

(c) তড়িৎক্ষমতা

(d) তড়িৎচালক বল।

Note: ওয়াট হল ক্ষমতার একক এবং ঘণ্টা হল সময়ের একক। সুতরাং, ওয়াট-ঘণ্টা হল ক্ষমতা এবং সময়ের গুণফল, যা তড়িৎশক্তির পরিমাপ করে।

 

1.8 কোন্ বাল্বটির রোধ সবচেয়ে বেশি?

(a) 220V-40W

(b) 220V-60W

(c) 220V-100W

(d) 220V-150W।

Note : বিভব প্রভেদ স্থির থাকলে বাল্বের রোধ বাল্বের ক্ষমতার সাথে ব্যাস্তানুপাতিতে পরিবর্তিত হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি বাতির বিভব একই (220 V) অর্থাৎ স্থির তাই সবথেকে কম ক্ষমতা (40 W) যুক্ত বাতিটির অর্থাৎ 220V-40W এর রোধ সবচেয়ে বেশি হবে। 

220V-40W বাতিটির রোধের মান হবে –

R=\frac{V^2}{P}

R=\frac{220^2}{40}=1210\Omega

1.9 গাছের বয়স নির্ধারণে ব্যবহৃত হয়—

(a) 12

(b) 13

(c) 14

(d) 14N ।

 

1.10 পর্যায় সারণীর 1 নং শ্রেণির মৌলগুলিকে বলে—

(a) চ্যালকোজেন

(b) নিকটোজেন

(c) হ্যালোজেন

(d) এরোজেন।

Note : প্রদত্ত বিকল্পগুলি সঠিক নয়। কারণ পর্যায় সারণীর 1 নং শ্রেণির মৌলগুলিকে ক্ষার ধাতু বলা হয়। 

  • চ্যালকোজেন হল পর্যায় সারণীর 16 নং শ্রেণির মৌল।
  • নিকটোজেন হল পর্যায় সারণীর 15 নং শ্রেণির মৌল।
  • হ্যালোজেন হল পর্যায় সারণীর 17 নং শ্রেণির মৌল।
  • এরোজেন হল পর্যায় সারণীর 18 নং শ্রেণির মৌল।

 

1.11 ত্রিবন্ধন যুক্ত একটি সমযোজী মৌলিক অণু হল-

(a) Cl2

(b) O2

(c) N2

(d) O3

1.12 অ্যানোড মাডে যে ধাতুটি পাওয়া যায়—

(a) গোল্ড

(b) ম্যাগনেশিয়াম

(c) লোহা

(d) অ্যালুমিনিয়াম।

 

1.13 কোন্ গ্যাসের সংস্পর্শে নেসলার বিকারক বাদামী বর্ণে পরিণত হয়—

(a) CO2

(b) H2S

(c) NH3

(d) SO2

 

1.14 কার্বন-বিজারণ পদ্ধতিতে নিষ্কাশন করা হয়—

(a) Ca

(b) Mg

(c) Zn

(d) Al

 

1.15 কোনটি সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন নয়?—

(a) CH4

(b) C2H6

(c) C3H8

(d) C2H4

Note : সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বন হল এক ধরনের জৈব যৌগ যেখানে কার্বন পরমাণুগুলি শুধুমাত্র একক বন্ধনের মাধ্যমে যুক্ত থাকে। এই যৌগগুলিতে কার্বন পরমাণুগুলির মধ্যে কোনও দ্বিবন্ধন বা ত্রিবন্ধন নেই।

সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বনগুলিকে সাধারণত অ্যালকেন নামেও পরিচিত। অ্যালকেনগুলির সাধারণ সূত্র হল CnH2n + 2, যেখানে  n  হল কার্বন পরমাণুর সংখ্যা।

সম্পৃক্ত হাইড্রোকার্বনগুলির মধ্যে কয়েকটি উদাহরণ হল:

  • মিথেন (CH4)
  • ইথেন (C2H6)
  • প্রোপেন (C3H8)

বিভাগ-“খ” 2. নিম্নলিখিত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও (বিকল্প প্রশ্নগুলি লক্ষণীয়) : 

2.1 বায়ুমণ্ডলের শীতলতম স্তর কোনটি?

উত্তরঃ বায়ুমণ্ডলের শীতলতম স্তর হল মেসোস্ফিয়ার। এটি পৃথিবীর পৃষ্ঠ থেকে প্রায় 50 থেকে 80 কিলোমিটার (প্রায়) এর মধ্যে অবস্থিত। মেসোস্ফিয়ারের গড় তাপমাত্রা প্রায় −85°C। 

অথবা,

‘ফায়ার আইস’ (Fire ice) কাকে বলে?

উত্তরঃ ফায়ার আইস হল একটি জীবাশ্ম জ্বালানী। এর রাসায়নিক নাম মিথেন ক্ল্যাথ্রেট, এটি মিথেন হাইড্রেট নামেও পরিচিত। এটি একটি কঠিন যৌগ এবং জলের স্ফটিক কাঠামোতে মিথেন আটকে দিয়ে গঠিত হয়। মিথেন হাইড্রেট সাদা বরফের মতো কঠিন পদার্থ।

Note : ফায়ার আইস সাধারণত সমুদ্রের তলদেশে পাওয়া যায়, যেখানে জল এবং মিথেনের চাপ এবং তাপমাত্রা মিথেন হাইড্রেট গঠনের জন্য উপযুক্ত। এটি বরফের চেয়ে অনেক বেশি শক্তি-ঘন, তাই এটি একটি সম্ভাব্য পরিবহন এবং সঞ্চয়ের জন্য জ্বালানি।

ফায়ার আইসের একটি বৈশিষ্ট্য হল এটি জ্বলনযোগ্য। এটিকে আগুনে পোড়ালে প্রচুর পরিমাণে তাপ এবং শক্তি উৎপন্ন হয়। এই বৈশিষ্ট্যের কারণেই একে ফায়ার আইস বলা হয়।

 

2.2 বায়োগ্যাসের প্রধান উপাদান কি?

উত্তরঃ বায়োগ্যাসের প্রধান উপাদান হল মিথেন (CH₄)

Note: বায়োগ্যাস সাধারণত প্রায় 50-70% মিথেন (CH₄) এবং 25-45% কার্বন ডাই অক্সাইড (CO₂) দিয়ে তৈরি, অন্য গ্যাসগুলির মধ্যে থাকে হাইড্রোজেন (H₂), হাইড্রোজেন সালফাইড (H₂S), জলীয় বাষ্প (H₂O), নাইট্রোজেন (N₂), অক্সিজেন (O₂), অ্যামোনিয়া (NH₃)।

2.3 −27°C উষ্ণতার মান পরম স্কেলে কত?

উত্তরঃ −27°C উষ্ণতার মান পরম স্কেলে 246K.

Note: সেলসিয়াস ও পরম স্কেলের মধ্যে সম্পর্কটি হলো –

K = 273 + t

যেখানে, t হলো সেলসিয়াস স্কেলে তাপমাত্রার মান এবং K হলো পরম স্কেলে তাপমাত্রার মান। 

আমাদের ক্ষেত্রে, যদি −27°C কে পরম তাপমাত্রায় প্রকাশ করা হয় তবে আমরা পাবো –

K = 273 + (−27) = 246

আরও পড়ুনঃ 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Bangla Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 English Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 History Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Geography Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Physical Science Solution

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Mathematics Solution 

Madhyamik ABTA Test Papers 2024 Life Science Solution 

2.4 সত্য না মিথ্যা লেখো : আদর্শ গ্যাসের বাস্তবে কোনো অস্তিত্ব নেই।

উত্তরঃ বিবৃতিটি সত্য।

Note: আদর্শ গ্যাসের বাস্তবে কোনো অস্তিত্ব নেই। আদর্শ গ্যাস হল একটি তাত্ত্বিক গ্যাস যা নিম্নলিখিত স্বীকার্যের ভিত্তিতে গঠিত:

  • গ্যাসের অণুগুলি কঠিন, গোলাকার, ক্ষুদ্র এবং পরস্পর সম্পূর্ণ সদৃশ।
  • সমস্ত সংঘর্ষ স্থিতিস্থাপক আর সমস্ত গতি ঘর্ষণহীন (সংঘর্ষ বা গতিশীল অবস্থায় কোনো শক্তিক্ষয় হয় না)।
  • নিউটনের সূত্র প্রযুক্ত হয়।
  • অণুগুলির আকার তাদের পারস্পরিক গড় দূরত্বের তুলনায় নিতান্তই নগণ্য।
  • অণুগুলি সরলরৈখিক পথে যে কোনো দিকে নির্দিষ্ট বেগ নিয়ে ইতস্ততভাবে সদা সঞ্চরণশীল।
  • অণুগুলির মধ্যে কোনো পারস্পরিক আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বল নেই।

বাস্তবে, কোনো গ্যাসের অণুগুলি কঠিন, গোলাকার, ক্ষুদ্র এবং পরস্পর সম্পূর্ণ সদৃশ হয় না। অণুগুলির মধ্যে পারস্পরিক আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বল থাকে। এছাড়াও, নিম্নলিখিত কারণে আদর্শ গ্যাসের সূত্রগুলি বাস্তবে সবসময় সঠিক হয় না:

  • উচ্চ চাপে, গ্যাসের অণুগুলির মধ্যে পারস্পরিক আকর্ষণ বল বেশি হয় এবং গ্যাসের আয়তন কমে যায়।
  • নিম্ন তাপমাত্রায়, গ্যাসের অণুগুলির গতিশক্তি কম হয় এবং গ্যাসের আয়তন বৃদ্ধি পায়।

উপরোক্ত কারণে, আদর্শ গ্যাসের বাস্তবে কোনো অস্তিত্ব নেই।

2.5 তাপ সঞ্চালনের যে পদ্ধতিতে কণাগুলির স্থানচ্যুতি ঘটে না, তার নাম কী?

উত্তরঃ পরিবহন (conduction) পদ্ধতি। 

Note: তাপ সঞ্চালনের যে পদ্ধতিতে কণাগুলির স্থানচ্যুতি ঘটে না, তাকে পরিবহন (conduction) বলে। এই পদ্ধতিতে, পদার্থের উষ্ণতর অংশের অণুগুলি তাদের গতিশক্তির মাধ্যমে শক্তিকে শীতলতর অংশের অণুগুলিতে স্থানান্তর করে। এই স্থানান্তরের ফলে উষ্ণতর অংশের অণুগুলির গতিশক্তি হ্রাস পায় এবং শীতলতর অংশের অণুগুলির গতিশক্তি বৃদ্ধি পায়।

অথবা,

SI পদ্ধতিতে তাপ পরিবাহিতাঙ্কের একক কী?

উত্তরঃ SI পদ্ধতিতে তাপ পরিবাহিতাঙ্কের একক : ওয়াট/মিটার-কেলভিন (W.m−1.K−1)

 

2.6 শূন্যস্থান পূরণ করো : প্রিজম ______ সৃষ্টি করতে পারে না।

উত্তরঃ প্রিজম নতুন রঙ সৃষ্টি করতে পারে না।

Note: প্রিজম আলোর বিচ্ছুরণ ঘটায়, যার ফলে আলোর বিভিন্ন তরঙ্গদৈর্ঘ্যের আলোক রশ্মি বিভিন্ন কোণে প্রতিসৃত হয়। এই ঘটনার ফলে আলোর সাদা বর্ণ সাতটি ভিন্ন রঙে বিভক্ত হয়। কিন্তু প্রিজম নতুন কোনও রঙ সৃষ্টি করে না। সাদা আলোতেই আগে থেকেই সাতটি রঙ বিদ্যমান থাকে। প্রিজম শুধুমাত্র এই রঙগুলিকে পৃথক করে।

তাই, প্রিজম নতুন রঙ সৃষ্টি করতে পারে না।

 

2.7 দীর্ঘ দৃষ্টি বলতে কী বোঝ?

উত্তরঃ দীর্ঘ দৃষ্টি হলো চোখের একটি ত্রুটি যার কারণে একজন ব্যক্তি দূরের বস্তু পরিষ্কারভাবে দেখতে পায় কিন্তু কাছের বস্তু ঝাপসা লাগে।

 

2.8 সত্য/মিথ্যা নিরূপণ করো : গৃহবর্তনীতে সব যন্ত্র শ্রেণি সমবায়ে যুক্ত থাকে।

উত্তরঃ বিবৃতিটি মিথ্যা। 

Note: গৃহবর্তনীতে সব যন্ত্র শ্রেণি সমবায়ে যুক্ত থাকে না। গৃহবর্তনীতে সাধারণত সমান্তরাল সমবায়ে যন্ত্রগুলি যুক্ত থাকে। সমান্তরাল সমবায়ে, প্রতিটি যন্ত্রের নিজস্ব বর্তনী থাকে এবং প্রধান বর্তনী থেকে যন্ত্রগুলির সাথে পৃথক পৃথক তারের সংযোগ থাকে। এতে, যদি একটি যন্ত্র নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে অন্য যন্ত্রগুলি কাজ করতে থাকে।

গৃহবর্তনীতে সমান্তরাল সমবায়ে যন্ত্রগুলি যুক্ত থাকে কারণ এটি নিরাপদ এবং কার্যকর। সমান্তরাল সমবায়ে, যদি একটি যন্ত্র নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে অন্য যন্ত্রগুলি কাজ করতে থাকে। এতে, আগুন লাগা বা বৈদ্যুতিক শক লাগার ঝুঁকি কম থাকে। এছাড়াও, সমান্তরাল সমবায়ে, বেশি বিদ্যুৎ ব্যবহার করলেও অন্যান্য যন্ত্রগুলির উপর প্রভাব পড়ে না।

2.9 LED এর পুরো নাম কী?

উত্তরঃ LED এর পুরো নাম Light Emitting Diode

 

2.10 শূন্যস্থান পূরণ করো : 1 কুরী= ______ বেকারেল।

উত্তরঃ 1 কুরী (Curie) = 3.7 × 1010 বেকারেল (Bq)

 

2.11 কোন শ্রেণির সকল মৌল গ্যাসীয়? 

ত্তরঃ পর্যায় সারণীর 18 নং শ্রেণীর সকল মৌল গ্যাসীয়। এই শ্রেণীকে নিষ্ক্রিয় গ্যাস বা নোবেল গ্যাস বলা হয়।

অথবা,

দুটি বিরল মৃত্তিকা মৌলের নাম লেখো।

উত্তরঃ দুটি বিরল মৃত্তিকা মৌলের নাম হল:

  • Yttrium (Y)
  • Gadolinium (Gd)

 

2.12 শূন্যস্থান পূরণ করো : ক্ষার ধাতু জলের সঙ্গে বিক্রিয়া করে ______ গ্যাস উৎপন্ন করে।

উত্তরঃ ক্ষার ধাতু জলের সঙ্গে বিক্রিয়া করে হাইড্রোজেন গ্যাস উৎপন্ন করে।

Note: ক্ষার ধাতু [যেমন সোডিয়াম (Na)] জলের সাথে বিক্রিয়া করার সমীকরণ হল:

Na + H2O → NaOH + H

2.13 অষ্টক সংকুচিত হয়েছে এরূপ একটি যৌগের নাম লেখো।

উত্তরঃ অষ্টক সংকুচিত হয়েছে কয়েকটি যৌগের নাম হল –

  • ম্যাগনেসিয়াম ফ্লোরাইড (MgF2)
  • বেরিলিয়াম ক্লোরাইড (BeCl2)
  • বোরন ফ্লোরাইড (BF3)
  • অ্যালুমিনিয়াম ফ্লোরাইড (AlF3)

অথবা,

যে মৌলের পরমাণু ক্রমাঙ্ক 20, তার যোজ্যতা কত?

উত্তরঃ যে মৌলের পরমাণু ক্রমাঙ্ক 20, তার যোজ্যতা 2

Note: পারমাণবিক ক্রমাঙ্ক 20 বিশিষ্ট মৌল হল ক্যালসিয়াম (Ca)।

ক্যালসিয়ামের ইলেকট্রন বিন্যাস হল 2, 8, 8, 2। এই বিন্যাসে ক্যালসিয়ামের সর্ববহিস্থ কক্ষে 2টি ইলেকট্রন রয়েছে।

ইলেকট্রন বিন্যাসের নিয়ম অনুসারে, একটি পরমাণু স্থিতিশীল হতে হলে তার সর্ববহিস্থ কক্ষে 8টি ইলেকট্রন থাকা উচিত। তাই ক্যালসিয়াম তার সর্ববহিস্থ কক্ষ থেকে 2টি ইলেকট্রন ত্যাগ করে অন্য কোনো পরমাণুর সাথে যুক্ত হয়ে অষ্টক বিন্যাস অর্জন করতে চায়। তাই ক্যালসিয়ামের যোজ্যতা হল 2

 

2.14 তড়িৎ বিশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় কোন্ শক্তি কোন্ শক্তিতে রূপান্তরিত হয়?

উত্তরঃ তড়িৎ বিশ্লেষণ প্রক্রিয়ায় তড়িৎ শক্তি রাসায়নিক শক্তিতে রূপান্তরিত হয়। 

 

2.15 কোন্ গ্যাসের সঙ্গে অ্যামোনিয়ার বিক্রিয়ায় একটি কঠিন পদার্থ উৎপন্ন হয়?

উত্তরঃ হাইড্রোজেন ক্লোরাইড (HCl)

Note: অ্যামোনিয়ার (NH₃) এবং হাইড্রোজেন ক্লোরাইড (HCl) গ্যাসের বিক্রিয়ায় একটি কঠিন পদার্থ উৎপন্ন হয়, যা হল অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড (NH₄Cl)। এই বিক্রিয়ার সমীকরণ হল:

NH3 (g) + HCl (g) → NH4Cl (s)

 

2.16 সত্য/মিথ্যা নিরূপণ করো : ধাতব যৌগ থেকে ধাতু নিষ্কাশন সর্বদাই একটি জারণ প্রক্রিয়া।

উত্তরঃ বিবৃতিটি মিথ্যা। 

অথবা,

বিমানের কাঠামো তৈরিতে ব্যবহৃত সংকর ধাতুটির নাম কি?

উত্তরঃ ডুরালুমিন। 

 

2.17 রূপার তড়িৎলেপনে তড়িৎবিশ্লেষ্য হিসাবে কোন্ পদার্থ ব্যবহৃত হয়?

উত্তরঃ পটাশিয়াম আর্জেন্টো সায়ানাইড। 

অথবা,

তড়িৎ বিশ্লেষণের সময় কী ধরনের তড়িৎপ্রবাহ ব্যবহার করা হয়?

উত্তরঃ তড়িৎ বিশ্লেষণের সময় সমপ্রবাহ (DC) ব্যবহার করা হয়। 

 

2.18 বামস্তম্ভের সঙ্গে ডানস্তম্ভের সামঞ্জস্য বিধান করো :

বামস্তম্ভ ডানস্তম্ভ
2.18.1 লাইকার অ্যামোনিয়া (a) অম্লধর্মী
2.18.2 H2S এর জলীয় দ্রবণ (b) মিথেন
2.18.3 জৈব ভঙ্গুর পলিমার (c) ক্ষারধর্মী
2.18.4 আলেয়া (d) সেলুলোজ

উত্তরঃ

বামস্তম্ভ ডানস্তম্ভ
2.18.1 লাইকার অ্যামোনিয়া (c) ক্ষারধর্মী
2.18.2 H2S এর জলীয় দ্রবণ (a) অম্লধর্মী
2.18.3 জৈব ভঙ্গুর পলিমার (d) সেলুলোজ
2.18.4 আলেয়া (b) মিথেন

আরও পড়ুনঃ 
3 thoughts on “Madhyamik ABTA Test Papers 2024 : Physical Science Page 82”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Insert math as
Block
Inline
Additional settings
Formula color
Text color
#333333
Type math using LaTeX
Preview
\({}\)
Nothing to preview
Insert
error: Content is protected !!